Sunday , August 19 2018
Home / বাংলাদেশ / খুলনা বিভাগ / অপারেশন ‘সাবটেল স্প্লিট’ সমাপ্ত ঘোষণা

অপারেশন ‘সাবটেল স্প্লিট’ সমাপ্ত ঘোষণা

ঝিনাইদহের মহেশপুরের বজরাপুরে জঙ্গি আস্তানায় পুলিশের অপারেশন ”সাবটেল স্প্লিট” সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় বোমা নিষ্ক্রিয়-কারী দলের অভিযানের পর অভিযানের সমাপ্তি টানেন পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহমেদ। এর আগে রোববার সকালে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নব্য জেএমবির এক সদস্য ও গুলিতে তুহিন নামে আরো একজন নিহত হয়।

এ ঘটনায় আহত হন পুলিশের দুই কর্মকর্তা। গতকাল বিকেলে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে প্রেসব্রিফিং এ একথা বলেন কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। নিরাপত্তার জন্য ঘটনাস্থলের আশপাশে ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন। এছাড়া, সদরের লেবুতলায় আরো একটি আস্তানা থেকে বিস্ফোরকসহ ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে আসা বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলের অভিযানের পর ঝিনাইদহের মহেশপুরের জঙ্গি আস্তানায় চালানো অপারেশন ”সাবটেল স্প্লিট”এর যবনিকাপাত টানলেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ।

এর আগে রোববার সকালে গোয়েন্দা তথ্য এবং আটককৃত নব্য জেএমবির সদস্য শামিমের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বজরাপুর গ্রামে অভিযানে যায় পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের একটি দল। এক পর্যায়ে গ্রামের হঠাৎপাড়া এলাকার জহির মিয়ার বাড়িতে অভিযানের সময় বাঁধাপ্রাপ্ত হন তারা।

এসময় জোর করে বাড়ির ভেতরে ঢুকতে গেলে, আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় বাড়ির বাসিন্দারা। এতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত হন। আহত হন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের এডিসি নাজমুল করিম এবং পুলিশের উপ-পরিদর্শক মহসিন। এসময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়, এতে নিহত হন আরো একজন। এদিকে আহত মহসিনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে এবং এডিসি নাজমুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আনা হয়েছে।

এ ঘটনায় বাড়ির মালিক জহির মিয়া ও তার ছেলে জসিমসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া, নিহতরা নব্য জেএমবির সদস্য বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

এছাড়া ঝিনাইদহের সদর উপজেলার লেবুতলা গ্রামে আটককৃত শামিমের বাড়িতে অভিযান চালায় কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের আরেকটি দল। সেখান থেকে ৮টি বোমা এবং একটি পিস্তলসহ ২ জনকে আটক করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*