Saturday , June 23 2018
Home / বাংলাদেশ / আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থন কাল

আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থন কাল

ব্লগার রাজীব হায়দার হত্যা মামলায় শেষ তদন্ত কর্মকর্তা নিবারণ চন্দ্র বর্মণের সাক্ষ্য-জেরা শেষে হয়েছে। আজ সোমবার এই মামলার শেষ তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে তাঁকে জেরা করে আসামিপক্ষ। কাল মঙ্গলবার আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত। ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক সাঈদ আহমেদ এ তারিখ ধার্য করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি মাহাবুবুর রহমান প্রথম আলোকে আলোকে বলেন, ১৫ ডিসেম্বর এ মামলার সর্বশেষ তদন্তকারী কর্মকর্তা নিবারণ চন্দ্র বর্মণ সাক্ষ্য দেন। আজ তাঁর সাক্ষ্য-জেরা শেষ হয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তা ছিলেন শেষ সাক্ষী। তিনি বলেন, দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তা মাইনুল ইসলামকে পুনরায় ডাকার জন্য একটি আবেদন করা হয়েছে। তা নিষ্পত্তি হয়নি। আদালত জানিয়েছেন প্রয়োজন হলে ওই আবেদন মঞ্জুর করা হবে। রাষ্ট্রপক্ষের আর অন্য কোনো সাক্ষী না থাকায় আদালত ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৪২ ধারায় আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য কাল মঙ্গলবার দিন ধার্য করেছেন।
২০১৩ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পল্লবীর পলাশনগরে বাসার সামনে ব্লগার রাজীবকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় রাজীবের বাবা নাজিম উদ্দীন পল্লবী থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলাটি প্রথমে তদন্ত করেন পল্লবী থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) শেখ মতিয়ার রহমান। এরপর দ্বিতীয় দফায় ডিবি পুলিশের মাইনুল ইসলাম এবং সবশেষে নিবারণ চন্দ্র বর্মণ ওই মামলা তদন্ত করেন।
এই মামলায় গত বছরের ২৯ জানুয়ারি আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান মুফতি জসীমউদ্দিন রাহামানীসহ আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় ডিবি পুলিশ। বাকি সাতজন হলেন, নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বহিষ্কৃত ছাত্র ফয়সাল বিন নাইম, মাকসুদুল হাসান, এহসানুর রেজা, নাঈম সিকদার, নাফিজ ইমতিয়াজ, সাদমান ইয়াছির মাহমুদ ও রেদোয়ানুল আজাদ ওরফে রানা। এদের মধ্যে রেদোয়ানুল আজাদ পলাতক।
আজও কারাগারে থাকা আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে তাঁদের কারাগারে পাঠিয়ে দেন আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*