Monday , August 20 2018
Home / জীবনযাপন / ঈদের ছুটি শেষে কাজে ফেরার কিছু কৌশল

ঈদের ছুটি শেষে কাজে ফেরার কিছু কৌশল

লাইফস্টাইল ডেস্ক
দেখতে দেখতে কেমন জানি ঈদুল আযহার ছুটি শেষ হয়ে গেলে। তবে এবার ঈদে লম্বা ছুটি কাটিয়েছেন অনেকেই। আর দীর্ঘ ছুটিতে অনেক সময় ধরে ঘুমানো, টিভি দেখা, আত্মীয় ও বন্ধুর বাসায় বেড়ানো ইত্যাদি কাজেই কেটেছে সময়। এবার কাজে ফেরার পালা। আর ছুটি উপভোগ করা শেষে কাজে ফেরাটাই যেন অস্বস্তিকর একটি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এটাই বাস্তবতা, ছুটি শেষে কাজে ফিরতে হবে। তাই ছুটির আনন্দ উপভোগ শেষে আপনি যেন কাজের আনন্দও উপভোগ করতে পারেন সে বিষয়ে জেনে নিন কিছু কৌশল।
কাজের তালিকা করুন
দীর্ঘ ছুটির পড়ে কাজে ফেরার আগে আপনার কাজের একটি তালিকা তৈরি করুন। ছুটির আগে সর্বশেষ যে কাজটি করেছেন তা ও তালিকাভুক্ত করে নেয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। এতে করে আপনি কোথায় কাজ শেষ করেছিলেন তা মনে করতে পারবেন, যা নতুন কাজ শুরু করার জন্য প্রয়োজনীয়। যে কাজগুলো বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেগুলো আগে তালিকাভুক্ত করুন। তবে খেয়াল রাখবেন তালিকাটি যাতে বেশি দীর্ঘায়িত না হয়।
লাঞ্চ বক্সে গরুর মাংস বাদ দিন
গুরুর মাংস শারীরিক কর্মক্ষমতা এবং ফিট থাকার জন্য উপকারী। কিন্তু যেকোনো কিছুই অতিরিক্ত হওয়া খারাপ। কোনবানীর ঈদেতো গরুর মাংস খাওয়া হয় প্রচুর। গরুর মাংসের প্রোটিন ও অতিরিক্ত কোলেস্টেরল হজম করতে পাকস্থলিকে প্রচুর কাজ করতে হয়। তাই পাকস্থলিকেও কিছুটা বিশ্রাম দেয়া প্রয়োজন। তাই ঈদের পরে অফিসে যাওয়ার সময় আপনার লাঞ্চ বক্সে গরুর মাংস বাদ দিয়ে মাছ, সবজি রাখুন এবং ফল রাখুন।
মেইল চেক করুন
কর্মক্ষেত্রের প্রথম দিনেই আপনার ডেস্কে হয়তো অনেক কাজ জমা হয়ে গেছে। এজন্য প্রথমেই ইনভেলাপ ও মেইল ওপেন করে ইনবক্সের সবগুলো মেইল খুলে দেখুন। পরে দেখবেন বলে জমিয়ে রাখবেন না। তবে গুরুত্বপূর্ণ মেইলগুলোই আগে চেক করা উচিৎ। প্রথমেই এগুলো দেখে শেষ করে ফেললে আপনার কাজ অনেকটা কমে যাবে।
একসাথে অনেক কাজ করবেন না
আপনার হয়তো অনেক ধরণের অনেক কাজ জমা হয়ে আছে। কিন্তু তাই বলে সব ধরণের কাজ একসাথে শুরু করবেন না। যেকোনো একটি কাজ শুরু করুন এবং মনোযোগ দিয়ে কাজটি শেষ করার পড় অন্য কাজে হাত দিন। এক সাথে অনেক কাজ শুরু করলে হযবরল হয়ে যাবে এবং আপনার স্ট্রেস বৃদ্ধি পাবে। ছুটিতে আপনি যে প্রশান্তি অর্জন করেছেন তা নষ্ট করার কোনো প্রয়োজন নেই!
সময় মত অফিস ত্যাগ করুন
আপনি অনেকদিন ছুটিতে ছিলেন বলেই অফিস টাইমের পরেও আপনাকে বাড়তি সময় অফিসে থাকতে হবে এমন নয়। সময়মত অফিসে উপস্থিত হওয়া যেমন জরুরি তেমনি কাজ শেষে নির্দিষ্ট সময়ে অফিস ত্যাগ করাও জরুরি। কেননা প্রত্যেকেরই পরিবার রয়েছে। এতে করে আপনার কাজের প্রতি আগ্রহ থাকবে এবং পরিবারকেও সময় দিতে পারবেন।
বাঁধা দূর করুন
কাজ ভালো ভাবে সম্পন্ন করার জন্য আপনার বাঁধাগুলোকে চিহ্নিত করুন এবং সেগুলোকে এড়িয়ে যান। ৫ মিনিট পর পরই যদি কাজের মধ্যে বাঁধা আসে তাহলে সময় মত কাজ সম্পন্ন করা অসম্ভব। এজন্য কর্মক্ষেত্রে আপনার সেল ফোনটি অফ রাখতে পারেন এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম যেমন ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদির অ্যাকাউন্টগুলো ও বন্ধ রাখুন। এগুলোতে সময় দিতে গিয়ে যাতে আপনার গুরুত্বপূর্ণ কাজের ব্যাঘাত না ঘটে।original_50994

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*