Thursday , October 18 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / এক বছরেও শুরু হয়নি রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম

এক বছরেও শুরু হয়নি রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম

মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে আইনের খসড়া অনুমোদন দেওয়ার এক বছর অতিবাহিত হলেও রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) কার্যক্রম শুরু হয়নি।

২০১৫ সালের ৭ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে রংপুর মহানগর পুলিশ আইন এবং গাজীপুর মহানগর পুলিশ আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। এর পর বিষয়টি আইন মন্ত্রণালয়ে ঝুলে রয়েছে।

এ অঞ্চলের মানুষ আশা করেছিল, চলতি বছরের শুরুতে হয়তো রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম শুরু হবে। সম্প্রতি রংপুরে দশম জাতীয় সংসদের স্বরাষ্ট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৫তম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে কমিটির সভাপতি টিপু মুন্সি বলেন, আসন্ন সংসদ অধিবেশনে বিষয়টি আইন মন্ত্রণালয় থেকে উত্থাপিত হবে। তার আশা, এ সংসদ অধিবেশনেই রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ আইন পাস হবে। নীতিগত সব সিদ্ধান্ত হয়ে গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রংপুর বিভাগ বাস্তবায়নের পর এ অঞ্চলের গুরুত্ব অনুধাবন করে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ গঠনের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। যে কারণে এর লোকবল, অবকাঠামো, কাজের পরিধি ও কর্মএলাকা নিয়ে বিস্তারিত প্রস্তাবনা সম্পন্ন হয়। ২০১০ সালের ২৫ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদের সভায় রংপুরকে বিভাগ করার বিষয়টি অনুমোদন দেওয়া হয়। একই বছর ৯ মার্চ এই বিভাগের বাস্তবায়ন হয় প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে। রংপুর বিভাগ সাত বছরে পা রেখেছে।

২০১৩ সালের ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যেই রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) কার্যক্রম শুরুর কথা থাকলেও তা হয়নি। বিভাগের পর রংপুর পৌরসভাকে সিটি করপোরেশনে উন্নীত করা হয়েছে। কিন্তু মেট্রোপলিটন পুলিশ গঠন করা হয়নি। ফলে সিটি করপোরেশন এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছে পুলিশ। নগরীর জনসংখ্যা ১০ লাখের ওপর। সে হিসাবে মাত্র একটি থানা আর তিনটি ফাঁড়ি দিয়ে কোনো রকমে চলছে আইশৃঙ্খলা কার্যক্রম।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী রংপুরকে মেট্রোপলিটন সিটি হিসেবে ঘোষণা করার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়ে ফাইলে স্বাক্ষর করেছেন অনেক আগেই। তার পর স্বরাষ্ট্র ও অর্থ মন্ত্রণালয় প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করে। এর পর তা মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে অনুমোদন করা হয় এবং বিষয়টি আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।

রংপুর পুলিশের একটি সূত্র জানায়, রংপুরের পুলিশ প্রশাসন যে প্রস্তাবনা তৈরি করে মন্ত্রণালয়ে পাঠায়, তাতে ২২৯ দশমিক ৭২ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে রংপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশ ইউনিট গঠনের কথা রয়েছে। সম্ভাব্য প্রস্তাবিত ৬টি থানা হলো, কোতোয়ালি, হাজীরহাট, পরশুরাম, তাজহাট, মাহীগঞ্জ ও সাহেবগঞ্জ। এসব এলাকায় জনসংখ্যা ধরা হয়েছে সাত লাখ ৫৮ হাজার। এর বিপরীতে পুলিশের লোকবল ধরা হয়েছে পাঁচ হাজার ১০০ জন। এর মধ্যে একজন ডিআইজি, ৯ এসপি, ৫৩ সহকারী এসপি, ২৩ এএসপি, ১২ ওসি, সাব-ইন্সপেক্টর ৭০০-৮০০, অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব-ইন্সপেক্টর ১৪০০-১৫০০ এবং বাকিরা কনস্টেবল পদে থাকবেন।

এ ছাড়া যানজট নিয়ন্ত্রণে মুখ্য ভূমিকা পালন করবে মেট্রোপলিটন পুলিশ। রংপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশ ইউনিটে থাকবে ১০টি পুলিশ ফাঁড়ি ও ৮টি পুলিশ বক্স।

এ ব্যাপারে রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক জানান, বিষয়টি এখন আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে। সেখানকার আইনগত প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পরই রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম শুরু হবে।

তিনি আশা করেন, খুব দ্রুত এটি বাস্তবায়ন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*