Saturday , June 23 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / গাইবান্ধায় গরু খাদ্য সংকট ; খাদ্যের মুল্য বৃদ্ধিতে গরু পালনে সর্বত্র হতাশা

গাইবান্ধায় গরু খাদ্য সংকট ; খাদ্যের মুল্য বৃদ্ধিতে গরু পালনে সর্বত্র হতাশা

শহিদুল হক গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি :-
গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার সর্বত্র গো-খাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। অধিক মুল্যেও গরুর প্রধান খাবার খড় পাওয়া যাচ্ছে না। উপায়ান্তু না পেয়ে গরুর মালিকরা কচুড়ি পানা সহ লতা পাতা সংগ্রহ করে গরুকে খাওয়াচ্ছেন । গত বন্যার পূর্বে জেলার বেশকয়টি ইউনিয়নের উপর দিয়ে বন্যা বয়ে যাওয়ায় কৃষকদের সংরক্ষিত গরুর খাদ্য খড় সম্পুর্ন নষ্ট হয়ে যায়।
জেলা জুড়ে গরু খাদ্য ধানের গুড়া, ভূষি, কেজাই,লবন ইত্যাদি নিত্য প্রয়োজনীয় গো খাদ্য গুলোর দ্বিগুন মুল্য বৃদ্ধিতে এবং অধিক মুল্যে গরু প্রধান খাদ্য খড় না মেলায় গরু পালনকারীগণের মাঝে চরম হতাশায় দেখা দিয়েছে।
এতদিন চড়া মুল্যে খড় কিনে সংকট মিটলেও এখন আর তাও পাওয়া যাচ্ছে না। জেলার গৃহস্থলিরা গরু নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন। সাময়িক ভাবে তারা পানিতে হওয়া কচুড়ি পানা দিয়ে গো-খাদ্যের অভাব মেটালেও রোগ ব্যাধির ভয়ে বেশিদিন এটির উপর নির্ভরশীল হতে পারছেন না বলে জানা যায়। জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলার খোর্দ্দ কোমরপুর গ্রামের হাফিজার বেপারী একই গ্রামের কৃষক আজাহার মণ্ডল জানান, দ্বিগুন দামেও গো খাদ্য পাচ্ছিনা। অবলা পশু গুলো কে নিয়ে চরম হতাশায় আছি আর মনে গরু গুলোকে রাখতে পারবো না। চাহিদা মাফিক খাবার না দিতে পারায় গরু গুলোর স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যাচ্ছে। এবার বন্যায় সব আবাদ নষ্ট হওয়ায় নিজেদের খড় হতে দেরী হবে।
উপজেলায় গরুর খাদ্য সংকটে কৃষকেরা গরুর খাদ্য কিনতে না পেরে তারা কম দামে হাটে গরু বিক্রি করতে হচ্ছে।
জেলার বিভিন্ন গো হাটে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় কম দামে গরু বিক্রি করে বাড়িতে ফিরছেন কৃষকরা কথা হলে তারা বলেন, চাল কিনে নিজেরা ভাত খাব না গরুর খাদ্য কিনবো। তারপরে যদি কিনতে যাই গরুর বিভিন্ন খাদ্যের মুল্যে শুনে ফিরে আসি। গরু খাদ্য গুলো সব কিছুর মুল্য বৃদ্ধি হয়ে দ্বিগুন হয়েছে। এ মুল্যে খাবার কিনে গরু পালন করলে কৃষকেরা পথে বসে যাবে। এ কারণে গরু বিক্রি করছেন বলে দাবী করেন হাটে আসা কৃষক।
সংকট উত্তরণে প্রতিদিন আশপাশের জেলা গুলো থেকে অধিক মুল্যে খড় সংগ্রহ করে এনে গরু পালন করছে অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*