Monday , July 23 2018
Home / অর্থনীতি / জনপ্রিয় হয়ে উঠছে রংপুরের অহিমায়িত আলু সংরক্ষণাগার

জনপ্রিয় হয়ে উঠছে রংপুরের অহিমায়িত আলু সংরক্ষণাগার

বাঁশ, কাঠ আর টিন দিয়ে মাত্র এক লাখ টাকায় তৈরি অহিমায়িত আলু সংরক্ষণাগার। যার ধারণ ক্ষমতা ২৫ থেকে ৩০ মেট্রিক টন। আলু রাখা যাবে ৫ থেকে ৬ মাস।কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে রংপুরের চারটি জেলায় নির্মিত এই সংরক্ষণাগার এরইমধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কৃষি বিভাগ বলছে, এর মাধ্যমে কম খরচে অধিক লাভবান হবেন কৃষকরা। দেশের অন্যতম আলু উৎপাদনকারী অঞ্চল রংপুর। প্রতি বছর এখানে উৎপাদন হয় প্রায় ৩৪ লাখ মেট্রিকটন আলু। কিন্তু বেসরকারীভাবে নির্মিত ৯৫টি হিমাগারের আলুর ধারণ ক্ষমতা মাত্র ১০ লাখ মেট্রিক টন। মৌসুমের শুরুতে আলু সংরক্ষণ করতে না পারায় কম দামে আলু বিক্রি করতে বাধ্য হন কৃষকরা। লোকসানের কথা চিন্তা করে তাই কৃষি বিপনন অধিদপ্তর রংপুরে চারটি জেলায় চালু করেছে ১৭টি অহিমায়িত আলু সংরক্ষণাগার। যার ধারণ ক্ষমতা ৩০ মেট্রিকটন এবং এতে আলু সংরক্ষণ করা যাবে অন্তত ৬ মাস। কৃষকের মতে কম খরচে এমন সুব্যবস্থা তাদের লোকসানের হাত থেকে বাঁচাবে। কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, এ ধরনের হিমাগার নির্মাণের জন্য সুবিধাজনক উঁচু, খোলা এবং বসতবাড়ির ছায়াযুক্ত স্থান নির্ধারন করতে হবে। যেখানে থাকবে পর্যাপ্ত বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা।

news;chanel24

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*