Monday , July 23 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে হবে,রংপুর সিটি নির্বাচন

ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে হবে,রংপুর সিটি নির্বাচন

স্টাফ রিপোর্টার: রংপুর সিটি কর্পোরেশন (রসিক) আসন্ন নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ভোট গ্রহণের পরিকল্পনা রয়েছে নির্বাচন কমিশন ইসি’র রোডম্যাপে। এজন্য চার কোটি টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। সেখানকার কয়েকটি ওয়ার্ডে ব্যবহার করা হবে ডিজিটাল ভোটিং মেশিন (ডিভিএম)। পুরনো ভোটার তালিকা ধরেই অনুষ্ঠিত হবে এ নির্বাচন।
নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বলেন, ‘রসিক নির্বাচন নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করতে আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এজন্য আগের ভোটার তালিকা অনুযায়ী সেখানে নির্বাচন হবে। কারণ জানুয়ারির আগে চলমান ভোটার তালিকার কাজ শেষ হবে না। আশা করি ডিসেম্বরের শেষে নির্বাচন হবে।’
নির্বাচন ব্যবস্থাপনা ও সমন্বয় শাখার উপসচিব মো. নুরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ‘দেশে ভয়াবহ বন্যার কারণে রংপুর সিটির নির্বাচন ডিসেম্বরে করা নিয়ে একটা শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিবস্থায় চলে আসায় ওই সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানে আর কোনো শঙ্কা নেই। আশা করছি, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নির্বাচন করা যাবে।’
ইসির বাজেট শাখা জানায়, ডিসেম্বরে রংপুর সিটিসহ আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট সিটির জন্য বাজেট ধরা হয়েছে ২৩ কোটি টাকা। বিগত নির্বাচনে এসব সিটির জন্য বরাদ্দ ছিল ১৫ কোটি টাকা। এবার সংশ্লিষ্ট নির্বাচনগুলোর জন্য বরাদ্দ ২৩ কোটি টাকার মধ্যে রংপুর সিটির জন্য সম্ভাব্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে প্রায় চার কোটি টাকা।
জানা যায়, ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা (প্রিসাাইডিং, সহকারী প্রিসাইডিং ও পোলিং অফিসার) এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পেছনে সবচেয়ে বেশি ব্যয় হয়। আর মোট বরাদ্দের সবচেয়ে কম ব্যয় হয় নির্বাচন পরিচালনা খাতে। এদিকে নির্বাচনের তাগিদ দিয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগে চিঠি দেয়ার কথা ভাবছেন তারা। তবে দেশব্যাপী চলা হালনাগাদ ভোটাররা আসন্ন সিটির এ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন না।
সূত্র জানায়, ২০১২ সালের ২০ ডিসেম্বরে রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হয়। আর প্রথম সভা হয় ২০১৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। সেই হিসাবে ২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নির্বাচন করার আইনি বাধ্যবাধকতা আছে। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে অর্থাৎ ২৫-৩১ তারিখের যেকোনো দিন এ নির্বাচনের ভোট নেয়া হবে।
প্রসঙ্গত, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৪২১ জন। নির্বাচনে সম্ভাব্য কেন্দ্র ধরা হয়েছে ১৯৬টি। তবে নবগঠিত এ সিটির প্রথম নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৭৪২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭৯ হাজার ১২৮ জন এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ৭৮ হাজার ৬১৪ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*