Sunday , July 22 2018
Home / বাংলাদেশ / বরিশাল বিভাগ / তরুণদের মাঝে জনপ্রিয়তাই এগিয়ে রাখছে সাদিক আব্দুল্লাহকে

তরুণদের মাঝে জনপ্রিয়তাই এগিয়ে রাখছে সাদিক আব্দুল্লাহকে

নিজস্ব প্রতিবেদক

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারে মাঠে নামেন। বরিশালে সাত মেয়র প্রার্থী। কিন্তু এদের সবার মধ্যে সাদিক আব্দুল্লাহ তরুণদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয়। সাদিক আব্দুল্লাহ তরুণদের সার্বিক দিক বিবেচনায় রেখে তাদের জন্য আলাদা পরিকল্পনা করেছেন বলে জানা যায়। আর তাই সাদিক আব্দুল্লাহ এখন তরুণদের আশার প্রদীপে পরিণত হয়েছে।

বরিশাল শহরের বিবির পুকুর পাড়ে সাদিক আব্দুল্লাহর ছবি ঝুলছে। শহরে নেতা কর্মীদের পোষ্টার, ব্যানারে তিনিও আছেন। রুপতলী বাসস্ট্যান্ডের পাশে মোটর সাইকেল মালিক ও চালক সমিতির কার্যালয়ের সাইনবোর্ডেও সাদিক আব্দুল্লাহর ছবি। এর কারণ জানতে চাইলে কিছু যুবক বলেন, আমরা সাদিক ভাই কে ভালবাসি। সাদিক ভাইর প্রতি ভালবাসা থেকেই এমন করা।

জানা যায়, তরুণদের জন্য তিনি শিক্ষার উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টিতে কাজ করবেন। তিনি বরিশালের প্রত্যেকটা তরুণকে দেশের জন্য সম্পদ হিসেবে তৈরী করবেন। তিনি তরুণদের মাদক মুক্ত রাখতে কাজ করবেন। তিনি তরুণদের জন্য স্বপ্নের বরিশাল সিটি গড়বেন। সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার এক পর্যায়ে এমনটা জানান। তিনি তরুণদের সাথে বন্ধু সুলভ কথা বলেন। তাই তরুণদের মাঝে সাদিক আব্দুল্লাহর জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। তরুণদের সবাই এখন সাদিক আব্দুল্লাহকেই বরিশাল সিটির পিতা হিসেবে চাচ্ছে।

আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী, সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, ইনশাআল্লাহ বরিশাল সিটি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ এবং পুরো নির্বাচনী কার্যক্রম উৎসব মুখর পরিবেশেই হবে। আমি নির্বাচিত হতে পারলে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনকে দুর্নীতিমুক্ত করবো, উন্নয়ন কাজের সুষম বণ্টন করবো এবং সুখে-দু:খে সবসময় জনগণের পাশে থাকবো।

প্রবীণ থেকে তরুণ, কেন্দ্র থেকে জেলা, মহানগর, উপজেলা সবখানে এখন সাদিক আব্দুল্লাহকে নিয়ে স্বপ্ন রচনা শুরু হয়েছে। সে স্বপ্নের সুতিকাগার বরিশাল আওয়ামী লীগের তৃণমূল। তরুণদের পাশাপাশি তৃণমূলের নেতাকর্মীদের স্বপ্নের কান্ডারী এখন সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। নগরীর তরুণ ভোটার তানভির আহম্মেদ অভি কিংবা ফরহাদ সরদার সবার চোখেমুখে এখন তরুণ মেয়র প্রার্থী সাদিক আব্দুল্লাহকে নিয়ে স্বপ্ন। এবার সাদিকের হাত ধরেই নগর পিতার আসন পুনরুদ্ধার হবে আওয়ামী লীগের এমনটাই মনে করছেন অনেকে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*