Sunday , August 19 2018
Home / আন্তর্জাতিক / ভারতে নোট বাতিলে বিপাকে বাংলাদেশিরা

ভারতে নোট বাতিলে বিপাকে বাংলাদেশিরা

bdp_kolkata

ভারতে কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তে ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিল করার পর থেকে বিপাকে রয়েছেন সে দেশের নাগরিকরা। পাশাপাশি ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন বাংলাদেশি পর্যটকরাও।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ১১ নভেম্বর থেকে সব এটিএম খোলা থাকার কথা থাকলেও এদিন রাজ্যের অনেক এটিএম’এর ঝাঁপই ছিল বন্ধ। আবার কোথাও এটিএম খোলা থাকলেও দরজায় টাঙানো ছিল ‘নো ক্যাশ’। ফলে দেশটির অন্যান্য রাজ্যের মতো কলকাতা শহরে ব্যাংক এবং বুথে ছিল দীর্ঘ লাইন। আর এতে বেশি ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে বাংলাদেশি পর্যটকদের।

প্রতিবছরই অসংখ্য বাংলাদেশি ভারতে যান চিকিৎসা করাতে অথবা বেড়াতে। বাংলাদেশের অধিকাংশ পর্যটকই ভারতে যান কলকাতা হয়ে। কিন্তু মোদি সরকারের এই আচমকা নোট বাতিলের সিদ্ধান্তে বেশি বিপাকে পড়েন কলকাতায় অবস্থানরত বাংলাদেশি পর্যটকরা। সবচেয়ে সমস্যায় পড়েছেন চিকিৎসা সেবা নিতে কলকাতায় যাওয়া রোগীরা।

যশোরের বাসিন্দা শেখ মনসুর আলি তার ভাইয়ের কিডনি সমস্যা নিয়ে গিয়েছিলেন কলকাতায়। তিনি জানান ‘কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভাইয়ের চিকিৎসা চলছে, কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুরোনো নোট নিচ্ছে না। হাসপাতাল থেকে বলা হয়েছে তারা মাত্র ১০০ রুপির নোট নেবে। কিন্তু আমার কাছে মাত্র কয়েকটা এই নোট রয়েছে। যদিও হাসপাতালে ভর্তির আগেই একটা বড় অংকের রুপি জমা দিয়েছি ওই হাসপাতালে। কিন্তু এখন হাসপাতালের চূড়ান্ত বিল নিয়েই ভয় হচ্ছে।

এদিকে কলকাতায় নিউমার্কেট এলাকায় শপিং করতে গিয়েও বিপাকে পড়েছেন বাংলাদেশিরা। কোন দোকানেই ৫০০ বা ১০০০ টাকার নোট নেওয়া হচ্ছেনা বলে অনেকে অভিযোগ করেছেন। এছাড়া কলকাতার নিউমার্কেটের অধিকাংশ মানি এক্সচেঞ্জগুলি থেকে বাংলাদেশি পর্যটকরা নিজেদের প্রয়োজন মতো রুপি বিনিময় করতে পারেনি। খুচরা রুপির টান থাকায় ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তেও আমদানি-রপ্তানি করতে গিয়ে চরম সমস্যায় পড়তে হয়েছে ব্যবসায়ীদের। ফলে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যেও ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

তবে এটিএম পরিসেবা স্বাভাবিক হতে আরও বেশ কিছুদিন সময় লাগবে বলে ব্যাংকগুলির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সরকারি ঘোষনা অনুযায়ী আগামী ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত এটিএমগুলি থেকে সর্বাচ্চ ২ হাজার রুপি তুলতে পারবেন গ্রাহকরা। এরপর সেই সংখ্যাটা বেড়ে হবে ৪ হাজার রুপি। অর্থাৎ এই মুহুর্তে কোন এটিএম থেকেই ২ হাজারের বেশি রুপি তোলা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*