Sunday , August 19 2018
Home / জীবনযাপন / রংপুরে ক্যান্সারে আক্রান্ত সন্তানকে বাঁচাতে পিতার আকুতি!

রংপুরে ক্যান্সারে আক্রান্ত সন্তানকে বাঁচাতে পিতার আকুতি!

রংপুর প্রতিনিধি:

প্লিজ আপনারা আমার মেধাবী পুত্রের পাশে দাড়ান। তাকে বাচাঁতে এগিয়ে আসুন। কথাগুলে একজন অভাগা পিতার, একজন স্কুল শিক্ষকের। দুরারোগ্য ব্লান্ড ক্যান্সারে আক্রান্ত এসএসসি পরীক্ষার্থী সন্তানকে বাঁচাতে সমাজের কাছে এক শিক্ষক পিতার আকুতি।

মেধাবী এই সন্তানের নাম শাহরিয়ার হোসেন। হাসিখুশি ডানপিটে শাহরিয়ার এবার রংপুর মহানগরীর খটখটিয়া বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা। জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাওয়া মেধাবী শাহরিয়ারের টার্গেট ছিলো এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাওয়া। কিন্তু বিধাতা যে তার টার্গেট অনেক আগেই নির্ধারণ করে রেখেছিলো কেই বা জানত।

ভালো ফলাফলের টার্গেটে বেশ ভালো ভাবেই চলছিলো শাহরিয়ারের পড়া-লেখা। এরই মধ্যে ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে দুরারোগ্য ব্লান্ড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে সে।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন ১২ লাখ টাকা। তিস্তার গর্ভে সহায়-সম্বল বিলীন হয়ে যাওয়া একটি বেসরকারী স্কুলের সহকারী শিক্ষক পিতার পক্ষে এতো টাকার ব্যবস্থা করা কোনভাবেই সম্ভব হচ্ছে না।

শাহরিয়ারের পিতা গঙ্গাচড়া উপজেলার লক্ষ্মীটারী ইউনিয়নের শংকরদহ নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক দেলদার হোসেন জানান, গঙ্গাচড়ার লক্ষীটারী ইউনিয়নের জয়রামওঝা গ্রামে একসময় তাদের বাড়ি ভিটে জায়গা জমি ছিল। কিন্তু তিস্তার ভাঙ্গন সব কিছু কেড়ে নিয়েছে। এখন রংপুর মহানগরীর পান্ডারদীঘি পাকার মাথায় ভাড়া বাড়িতে থাকেন।

স্কুলের বেতন দিয়ে কোনমতে ৫ জনের সংসার চালাচ্ছেন। এরই মধ্যে তার বড় পুত্র শাহরিয়ার ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। জমি জমাও সব নদীতে। বাড়তি আয়ও নেই। এঅবস্থায় কিভাবে তিনি এখন সন্তানের চিকিৎসা করাবেন ভেবে পাচ্ছেন না। তাই সরকার এবং বিত্তবানদের সহযোগিতা চেয়ে এই স্কুল শিক্ষক বলেন, প্লিজ আপনারা আমার মেধাবী পুত্রের পাশে দাড়ান। তাকে বাচাঁতে এগিয়ে আসুন।

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালের চিকিৎসক ডা. কামরুজ্জামান জানান, শাহরিয়ার হোসেন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ক্যান্সার ইউনিটে ভর্তি আছে। তার নিয়মিত ক্যামোথেরাপী দেয়া প্রয়োজন। তার সু-চিকিৎসার জন্য অন্তত ১২ লাখ টাকা প্রয়োজন পড়বে। শাহরিয়ারকে সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা, সোনালী ব্যাংক রংপুর কাচারী বাজার শাখা, হিসাব নং-৩৪০১৬৯৪৬ অথবা বিকাশ নং- ০১৭৭০৯৩০১৭০।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*