Monday , August 20 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / রংপুরে শিশু প্রশিক্ষণ ও পূর্ণবাসন আবাসিক বালক সেন্টারে বলাৎকারের অভিযোগ

রংপুরে শিশু প্রশিক্ষণ ও পূর্ণবাসন আবাসিক বালক সেন্টারে বলাৎকারের অভিযোগ

স্টাফ রির্পোটার:

নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ড ধর্মদাস চেয়ারম্যান পাড়ায় শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূর্ণবাসন কেন্দ্রে গভীর রাতে শিশুদের উপর হায়েনার মত ঝাপিয়ে পড়ে হাউস ব্রাদার সুজন চন্দ্র । সমাজের সুবিধা বঞ্চিত অবহেলিত ও পরিবার থেকে বঞ্চিত ঝুকিপূর্ণ শিশুদের সুরক্ষার জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এক শ্রেণী ব্যক্তিবর্গ সরকারের এ উদ্যোগকে ব্যাহত করছে। নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ড ধর্মদাস চেয়ারম্যান পাড়ায় শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূর্ণবাসন কেন্দের শিক্ষক হাউস ব্রাদার সুজন চন্দ্রের বিরুদ্ধে বলাৎকার করার অভিযোগ করেন প্রতিষ্ঠানের একাধিক শিক্ষার্থী। বলাৎকারের শিকার শিশু জিহাদ, সোহেল ও রেজওয়ান বলেন, যখন সবাই ঘুমিয়ে পড়ে সুজন স্যার আমাদের সাথে ঘুমানোর কথা বলে জোর করে খারাপ কাজ করে। আর বলে যদি এ কথা কাউকে বলিস তাহলে তোকে মেরে ফেলব। আরেক শিক্ষার্থী লিমন বলেন, আমি কয়েক দিন আগে দেখি জিহাদ এর সাথে সুজন চন্দ্র স্যার কারাপ কাজ করতেছে আর জিহাদ কান্নাকাটি করছে। পরের দিন জিহাদ অসুস্থ হলে আমরা উম্মে সালমা ম্যাডামকে বলি।

কিন্তু ম্যাডাম আমাদের উপর রেগে যান। এ বিষয়ে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূর্ণবাসন কেন্দ্রের উপ পরিচালক উম্মে সালমার সাথে কথা হলে তিনি প্রতিবেদককে জানান, আজ ছুটির দিন এ বিষয়ে কোন কথা বলতে পারব না আপনারা কি করতে পারেন করেন। প্রতিষ্ঠানের স্যোসাল ওর্য়াকার কাম টেলিফোন অপারেটর কল্পনা খাতুন সুজন চন্দ্রের পক্ষ নিয়ে বলেন, পুরুষ পুরুষ কোন এ কাজ করতে পারে না অবশেষে তিনি স্বীকার করে বলেন,এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। স্থানীয় এক এলাকাবাসী সায়েম জানান, এ কাজ ঐ শিক্ষক আজ থেকে ২ মাস আগেও একবার এ ধরনের কর্মকাণ্ড ঘটিয়ে ছিলো, তারা নিজেরা বসে স্কুলে বসে ঠিক করে নিয়েছে আবার সেই শিক্ষকই একই কাজ করলো। এঘটনার বিচার দাবী করেন তারা। এব্যাপারে ৩২ নং ওয়ার্ড এর কাউন্সিলর আবুল কাসেম জানান,এ বিষয়ে ঐ স্কুলের ৫/৬ জন ছাত্র আমার কাছে এসেছিলো যেহেতু বিষয়টি নারী শিশু অপরাধ সম্পর্কিত স্পর্শকাতর । তাই থানা পুলিশ অথবা আদালতের আশ্রয় নিতে বলেছি। এ বিষয়ে রংপুর কোতয়ালী থানার অফিসারস ইনচার্জ মোঃ বাবুল মিয়া জানান, এ ঘটনার বিষয়ে আমরা কোন অভিযোগ পাইনি ,অভিযোগ পেলে অবশ্যই দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*