Monday , August 20 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুরে স্কুল শিক্ষক কর্তৃক ছাত্র নির্যাতন,অভিমানে সেই ছাত্রের আত্মহত্যা:প্রতিবাদে নগরীতে মানববন্ধন

রংপুরে স্কুল শিক্ষক কর্তৃক ছাত্র নির্যাতন,অভিমানে সেই ছাত্রের আত্মহত্যা:প্রতিবাদে নগরীতে মানববন্ধন

 

রংপুর মহানগরীর লায়ন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক দুলু কর্তৃক ছাত্র অনুপ সরকারকে আত্মহত্যার প্ররোচণা দেয়ার অভিযোগে এলাকাবাসীর মানববন্ধন ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া

রংপুর প্রতিনিধি:রংপুর মহানগরীর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক আকতারুজ্জামান দুলুর বিরুদ্ধে চুল বড় রাখার অপরাধে চুল ধরে টানাটানি, দেয়ালে ধাক্কাধাক্কি ও লাথি মেরে একই স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র অনুপ সরকারকে আত্মহত্যার প্ররোচণা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করে শাস্তির দাবিতে আনতে বুধবার রংপুর নগরীর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে সেই শিক্ষার্থীর সহপাঠী ও এলাকাবাসীরা।

দুপুরে অনুষ্টিত মানববন্ধন চলাকালে অনুপ সরকারের পিসি বেবী রাণী সরকার, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা কমিটির সদস্য পলাশ কান্তি নাগ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জেলা সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, অনুপের দাদু নারায়ণ চন্দ্র রায়, প্রতিবেশী ছায়া রাণী দেব, নিমাই ঘোষ, লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী শাওন দাস, আশিক ঘোষ প্রমুখ ছিলেন। মানববন্ধনে বলা হয়, অনুপ সরকার গত ১১ মার্চ শনিবার সকাল আনুমানিক ৮.৩০ টার সময় গণিত ক্লাস চলাকালীন সময়ে মাথার চুল বড় রাখার কারণে শিক্ষক আকতারুজ্জামান দুলু সকলের সামনেই তাকে ভৎসনা করে।

এরপর ঔ শিক্ষক অনুপ সরকারের মাথার চুল ধরে ক্লাসের দেয়ালে ৩/৪ বার ধাক্কা মারে এবং তার গালে কয়েকটি থাপ্পড় মেরে কুলাঙ্গার বলে ক্লাস থেকে বের করে দেয়। সেই ঘটনার পর অনুপ সরকার লজ্জায়-অপমানে আহত অবস্থায় মাথা নিচু করে বিদ্যালয়ের মাঠ দিয়ে যখন হেঁটে গেটের কাছে আসছিল তখন লাথি মেরে বিদ্যালয় থেকে বের করে দেয়। শিক্ষকের নির্যাতন ও অপমান সইতে না পেরে ১২ মার্চ দিবাগত রাতে সকলের অগোচরে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করে অনুপ সরকার। মানববন্ধনে বলা হয়, অনুপ সরকারের আত্মহত্যার জন্য ওই পাষন্ড শিক্ষক দায়ী। তা না হলে সে আত্মহত্যার পথ বেছে নিত না। পিতৃতুল্য একজন শিক্ষকের একজন ছাত্রের সাথে এমন পৈশাচিক আচরণ কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

বক্তারা অবিলম্বে পাষন্ড শিক্ষক আকতারুজ্জামান দুলু কে গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানান। রংপুর প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ থেকে ওই শিক্ষকের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকের অভিমত জানতে তাকে প্রতিবেদক কয়েকবার কল দিলেও তিনি কল রিসিভ করেন নি। অন্যদিকে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী জানান অনুপ তার সহপাঠীর সাথে প্রেম করতো।প্রেমিকার সামনে এভাবে মাইর খেয়ে লজ্জায় আত্যহত্যা করতে পারে হয়তো।

রংপুর মহানগরীর লায়ন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক দুলুর ছাত্র অনুপ সরকারকে আত্মহত্যার প্ররোচণা দেয়ার অভিযোগ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*