Saturday , August 18 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / রংপুর গঙ্গাচড়ায় টি আর প্রকল্পের টাকা আত্মসাত

রংপুর গঙ্গাচড়ায় টি আর প্রকল্পের টাকা আত্মসাত

মঈনুজ্জামান মিল্টন, গংগাচড়া রংপুর:
ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে টি আর প্রকল্পের লক্ষাধিক টাকা আত্মসাত করেছে দুই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি।

ঘটনাটি ঘটেছে রংপুরের গংগাচড়া ঊপজেলার গজঘন্টা ইঊনিয়নের ছালাপাক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মর্নেয়া ইঊনিয়নের মৌভাষা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে । সুত্র মতে ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের টি আর প্রকল্পের আওতায় বিশেষ বরাদ্দ হিসাবে জেলা প্রশাসক রংপুর ১৫মে ১৬ তারিখ ২২৮ নং স্বারকে বিদ্যালয় সংষ্কার ও সোলার প্যানেলস্থাপনের জন্য অগ্রিম বিক্রয়যোগ্য ২ টন করে মোট ৪ টন গম বরাদ্দ দেন। সে মোতাবেক গংগাচড়া ঊপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকতার কার্যালয় ১২ই জুন ১৬ তারিখে ২৪৩ নং স্বারকে দুই স্কুল কতৃপক্ষের কাছে বরাদ্দপত্র প্রদান করেন যার সরকারী বিক্রয়মুল্য ১,৪৫,৩৪২ টাকা। সরেজমিনে জানাগেছে ছালাপাক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর নির্মান ও সংষ্কার কাজের রেজুলেসন কতৃপক্ষের কাছে জমা দিলেও কোন কাজ করেননি। নাম প্রকাশে অনি”ছুক এলাকার লোকজন ষ্কুলের সহকারী শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা জানান গত দুই বছরে ষ্কুলের কোন কাজ হয়নি কিছুদিন আগে প্রধান শিক্ষক একটি সোলার লাগিয়েছেন সেটি উপহার নাকি তিনি নিজের টাকা দিয়ে লাগিয়েছেন তা তারা জনেন না।

ছালাপাক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালযের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে বলেন বরাদ্দের বিপরিতে কাজের রেজুলেসন কতৃপক্ষের কাছে জমা দিয়েছেন। একইভাবে উপজেলার মর্নেয়া ইঊনিয়নের মৌভাষা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সংষ্কার কাজের রেজুলেসন জমা দিয়ে সংষ্কার কাজ করেছেন বলে দাবী করলেও তার সত্যতা মেলেনি। এলাকার লোকজন জানান কতৃপক্ষের জোর তদারকি থাকলে ষ্কুল কতৃপক্ষ এরকম কাজ করার সাহস পেতেন না। এব্যপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কমকর্তা বাবুল চন্দ্র রায় জানান নবায়নযোগ্য জালানী সোলার প্যানেল এর কোন বিকল্প নেই যদি ষ্কুল কতৃপক্ষ অনিয়ম করে সরকারী টাক ভোগ করে থাকে প্রমানিত হলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্তা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*