Thursday , October 18 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / রসিক নির্বাচন: নৌকার প্রার্থীতা চূড়ান্ত নিয়ে গুজব!

রসিক নির্বাচন: নৌকার প্রার্থীতা চূড়ান্ত নিয়ে গুজব!

মাইক্রোনিউজ ডেস্ক:
আওয়ামীলীগ থেকে বর্তমান রংপুর সিটি মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুকে আসন্ন রসিক নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার ব্যাপারটি চূড়ান্ত হয়েছে এমন উড়োখবর টক অফ দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে ।

এ খবরে আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠেছে মেয়র ঝন্টুর সমর্থকরা। বুধবার রাত দশটার পর থেকে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় তার সমর্থকরা আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছে।

ঝন্টু সমর্থকদের দাবি, বুধবার সন্ধ্যায় দলীয় হাই কমান্ড থেকে মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুকে দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্তের ব্যাপারে গ্রীণ সিগন্যাল দেওয়া হয়েছে বলে অবগত করা হয়। নৌকা প্রতীকে নির্বাচনের জন্য এবং দলের হয়ে কাজ করার জন্য তাকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এদিকে আগে থেকেই প্রার্থীতা নিশ্চিতের বিষয়টি অবগত হয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতাসহ ধন্যবাদ জানিয়ে নগরীতে নিজের নামে পোস্টার সাঁটিয়েছেন সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।

তবে হঠাৎ করে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ১৩ জনের মধ্যে বর্তমান মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুর নৌকা প্রতীক পাওয়ার উড়োখবরটি নিয়ে রংপুরের পাড়া-মহল্লা থেকে শুরু করে চায়ের টেবিল পর্যন্ত চলছে পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা সমালোচনা।

এব্যাপারে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুর সাথে মোবাইলে এশাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত সোমবার (২৩ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমন্ডলীর বৈঠকে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের বিষয়ে আলাপ-আলোচনা হয়েছে। ওবায়দুল কাদের এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রাথমিক দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি একই সঙ্গে সিটি কর্পোরেশনগুলোতে দ্রুত দলের সদস্যপদ নবায়ন ও নতুন সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরুর ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন। সম্পাদকমন্ডলীর ওই বৈঠকে নেতারা ছয় সিটি কর্পোরেশনে আওয়ামী লীগের দলীয় অবস্থানও বিশ্লেষণ করেছেন। তবে কাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে সেরকম কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

এ বৈঠকে রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সাংগঠনিক দায়িত্ব পালনের জন্য দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এবং সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হককে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সম্ভাব্য প্রার্থীদের সঙ্গে কথা বলবেন এই দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা।

রংপুরে দলের সদস্যপদ নবায়ন ও নতুন সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধনের জন্য আগামী ৮ নভেম্বর রংপুরে আসছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এই দিন তিনি স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে বসে সিটি নির্বাচনের প্রার্থীতার বিষয়ে আলোচনা করবেন। এরপর প্রার্থী বাছাইয়ে দলীয় প্রধান শেখ হাসিনাসহ ১৯ সদস্যের স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সভায় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।


এ বিষয়ে জানতে চাইলে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবু তুষার কান্তি মন্ডল বলেন, মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে মর্মে যে খবর শোনা যাচ্ছে সেটা ভিত্তিহীন, বানোয়াট এবং দলীয় গঠনতন্ত্র পরিপন্থী। নির্বাচনের তফশিল ঘোষণার পর কেন্দ্র থেকে আমাদের কাছে ৩ জন প্রার্থীর তালিকা চাওয়া হবে। আমরা সাধারণ সভা করে ৩ জনের তালিকা কেন্দ্রে প্রেরণ করবো। তারপর মনোনয়ন বোর্ড বসে সিদ্ধান্দ নিবে কাকে মনোনয়ন দেওয়া যায়।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি বলেন, একটি মহল বাতাসে গুজব ছড়াচ্ছে। আওয়ামীলীগ কোন ভুঁইফোড় সংগঠন না যে মোবাইলে মনোনয়ন দিয়ে দিবে। আমি কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে কথা বলেছি, রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এখনও আওয়ামীলীগের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়নি বলে তারা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*