Tuesday , September 25 2018
Home / বাংলাদেশ / রাজধানীর উত্তরায় লিফট ছিঁড়ে ৫ জন নিহত,আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক

রাজধানীর উত্তরায় লিফট ছিঁড়ে ৫ জন নিহত,আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক

PicsArt_06-25-02.47.47শাহরিয়ার জীম,ঢাকা:

আলাউদ্দিন টাওয়ারের লিফটের রশি ছিঁড়ে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই ঘটনায় সেখানে আগুন লেগে আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক।

ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক মোহাম্মদ আলী আহম্মেদ খান বলেন, লিফটের রশি ছিঁড়ে পড়ে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

“বেজমেন্টে একটি নামাজের স্থান ছিল। লিফট ছিঁড়ে নিচে পড়লে নামাজের ঘরের দেয়াল ভেঙে যায়, তাতেই এসব হতাহতের ঘটনা। একই সময় আরও একজন আহত হন।”

নিহতের মধ্যে তিন পুরুষ ও দুই নারী রয়েছেন। এদের মধ্যে রেজাউল করিম রানা (৩২) ও সালমা আক্তার (৪০) এই দুজনের নাম জানা গেছে।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দায়িত্বরত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক জানিয়েছেন, রাত ৯টা পর্যন্ত তারা যে চার জনের মৃত্যুর ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছেন তাদের তিন জন পুরুষ এবং নারী।

এ ঘটনায় রিয়াজউদ্দিন নামে একজন দমকলকর্মী আহত হয়েছেন বলেও জানান মাহমুদুল।

এদিকে ওই ঘটনায় লিফটে আগুন লেগে তা ছড়িয়ে পড়লে মার্কেটে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

উত্তরা পূর্ব থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী শাহান জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই বহুতল ভবনের বেজমেন্টে লিফট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় এবং তা ছড়িয়ে পড়ে।

প্রায় ঘণ্টা দেড়েক চেষ্টার পর সাড়ে ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলে দমকল বাহিনীর নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়।

কাজী শাহান জানান, এই ঘটনায় অর্ধ শতাধিক আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ উত্তরা এলাকার বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল ফাঁড়ি পুলিশের এসআই মোহাম্মদ বাচ্চু মিয়া জানান, চার জনকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। আগুনে তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে গেছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

তাদের মধ্যে তিন জনের পরিচয় মিলেছে। তারা হলেন, মাহমুদুল হাসান (৩৬), তার মেয়ে মাইসা (১০), মোস্তাকিম (৮ মাস)।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বাচ্চু মিয়া বলেন, মাহমুদুলে হাসানের শরীরের ৮০ শতাংশ, মাইসার ৫৫ এবং মোস্তাকিমের ২৩ শতাংশ পুড়ে গেছে।

তাদেরকে যে ব্যক্তি হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলেন তার নাম সোহান।

তিনি জানান, বেজমেন্টে ট্রপিক্যাল হোমস লিমিটেড নামে একটি অফিস রয়েছে। মাহমুদুল হাসান ওই অফিসের এজিএম। তিনি দুই বাচ্চাকে নিয়ে ইফতার পার্টিতে এসেছিলেন।

তাদের বাসা উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরে বলেও জানান সোহান।

আহতদের মধ্যে অন্তত ৩০ জন উত্তরা বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানান হাসপাতালটির ব্রাদার লুৎফর।

এছাড়া উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে অন্তত ৩৫ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। তার মধ্যে ছয় জনকে ভর্তি করা হয়েছে।

ক্রিসেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপক তোফাজ্জল হোসেন বলেন, “আহতদের মধ্যে শাপলা (২৭) নামে আহত এক নারীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তিনি মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়েছেন।”

উত্তরা তিন নম্বর সেক্টরে অবস্থিত এই টাওয়ারটিতে শপিংমল ছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অফিস রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*