Friday , August 17 2018
Home / জীবনযাপন / রাতে নারী ও দিনে চোরাই গাড়ি ব্যাবসায় জড়িত রংপুরের লাইফস্টাইল ফিটনেস জীমের প্রশিক্ষক মুন্না

রাতে নারী ও দিনে চোরাই গাড়ি ব্যাবসায় জড়িত রংপুরের লাইফস্টাইল ফিটনেস জীমের প্রশিক্ষক মুন্না

বিশেষ অনুসন্ধানী প্রতিবেদক:
রংপুর মহানগরীর জাহাজ কোম্পানি মোড়ে অবস্থিত লাইফস্টাইল ফিটনেস জীম এর প্রশিক্ষক মুন্না নিট্রিক্স ওরফে রফিক আহম্মেদ এর বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারি ও চোরাই মোটরসাইকেল ব্যবসার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অনুসন্ধানে জানাগেছে, মুন্নার বাড়ি চট্টগ্রাম জেলায়। তিনি চট্টগ্রাম হতে বিভিন্ন দামী ব্যান্ডের চোরাই মোটরসাইকেল এনে রংপুরে বিক্রি করছেন। আর তার বেশিরভাগ ক্রেতা জীমে ব্যায়াম করতে আসা তরুণ ও ব্যবসায়ীদের কাছে।

সম্প্রতি মুন্নার কাছ থেকে নেয়া রংপুরের এক(নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) এক ঠিকাদারের বাসা থেকে মুন্নার ভুয়া রেজিস্ট্রেশন নাম্বার সম্বেলিত একটি সুজকি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ।

যার রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঢাকা মেট্রো ল-২৩-৬৩৬২। এই উদ্ধার করা মোটরসাইকেলের সূত্র ধরে মুন্না নিট্রিক্স এর চোরাই মোটরসাইকেল ব্যবসার খবর প্রকাশ্যে আসতে থাকে।

মুন্না নিট্রিক্স এসব অবৈধ লেনদেনের ক্ষেত্রে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, কদমতলী শাখার হিসাব নং-২০৪৩৪০০০১০০ ব্যবহার করেন। চোরাই গাড়ি বেঁচা কেনায় এই একাউন্ট প্রায় ব্যবহার করে যার প্রমাণ মাইক্রোনিউজ২৪.কম এর হাতে এসেছে।

এছাড়া তিনি চোরাই মোটরসাইকেলের জন্য ভুয়া ডিজিটাল ব্লু-বুক ও নাম্বার প্লেটও সরবরাহ করে থাকে।

এদিকে মুন্না নিট্রিক্স মেয়ের সাথে প্রেমের নামে প্রতারণা, বিবাহিতদের সাথে পরকীয়া করে আসছেন দীর্ঘদিন থেকে বলেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রংপুরের সনমাধন্য পরিবারের মেয়ে ও একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

জানাযায়, লাইফস্টাইল জীমের পুরুষ ও মহিলাদের প্রশিক্ষণের জন্য মুন্নাই একমাত্র প্রশিক্ষক, আর এই সুযোগে বেশকিছু সুন্দরী মেয়ে সদস্যদের সাথে তার গভীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এভাবে কয়েকটি মেয়ের সাথে তিনি প্রতারণা করেছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। টাকার বিনিময়ে বড় ব্যবসায়ীদের কাছে মেয়ে সরারাবরাহ করে বলেও অভিযোগ আছে মুন্নার বিরুদ্ধে।

মেয়েদের সাথে তার ঘনিষ্ঠ ছবি মাইক্রোনিউজ২৪ ডটকম এর কাছে এসেছে।

নারী ঘটিত বিষয়টি রংপুরের স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও যুবলীগের কয়েকজন নেতার কানে গেলে গত ১৮ই জুলাই সন্ধ্যায় মহানগর আওয়ামীলীগ এর বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের কয়েকজন নেতার উপস্থিতে মুন্না তার বিভিন্ন অপকর্মের কথা স্বীকার করে রংপুর থেকে চলে যাওয়ার অঙ্গীকার করে।

এ সময় উপস্থিত থাকা রংপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রমজান আলী তুহিন বলেন, আমরা তাকে ব

ছবিতে মুন্না

জীমের প্রশিক্ষক মুন্না

চট্রোগ্রাম থেকে নিয়ে আসা চোরাই গাড়িতে মুন্না

চোরাই গাড়ি

লেছি তুমি তোমার জেলায় গিয়ে যা ইচ্ছে করো কিন্তু আমাদের রংপুরে এ ধরণের অবৈধ কর্মকাণ্ড করা যাবে না।

এসব বিষয়ে জানতে মুন্না নিট্রিক্স এর ব্যবহৃত মোবাইলে ১৯ জুলাই বৃহস্পতিবার রাতে কয়েকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

লাইফস্টাইল জীমের মালিক এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। খোজ নিয়ে জানাযায় তিনি বর্তমানে দেশের বাইরে রয়েছে।

রংপুরে ফিটনেস জীম ব্যবসার আড়ালে এসব নারী ঘটিত ও চোরাই অপকর্ম মুন্নার বিরুদ্ধে প্রকাশ পেলে সেই জীমে যাওয়া নারীরা আতংকিত হয়ে উঠেন। রংপুরের সুশীল সমাজ খুব দ্রুত এর শাস্তি দাবি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*