Monday , June 18 2018
Home / বাংলাদেশ / খুলনা বিভাগ / রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব‌ন্ধের দা‌বি‌তে খুলনায় উপকূলীয় মানুষের মহাসমাবেশ

রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব‌ন্ধের দা‌বি‌তে খুলনায় উপকূলীয় মানুষের মহাসমাবেশ

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট, খুলনা : রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব‌ন্ধের অাহবান জা‌নি‌য়ে খুলনায় উপকূলীয় মানু‌ষের মাহাসমা‌বেশ অনু‌ষ্ঠিত হ‌য়ে‌ছে। বৃহস্প‌তিবার (২০ এপ্রিল) বি‌কে‌লে নগরীর শহীদ হা‌দিস পা‌র্কে তেল গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির অা‌য়োজ‌নে এই সমা‌বেশ অনু‌ষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন- রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বিপুল সংখ্যক মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হবে। এ অঞ্চলের ৪০ থেকে ৫০ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়বে। তাই যে কোন মূল্যে সুন্দরবন বিনাশী এই প্রকল্প বাতিল করতে সর্বাত্তক আন্দোলন গড়ে তোলা হ‌চ্ছে।

‘বিদ্যুৎ কেন্দ্রর বহু বিকল্প আছে, সুন্দরবনের কোন বিকল্প নেই।’ শ্লোগান‌কে সাম‌নে রে‌খে তিনি ব‌লেন- ভারত-চীন কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ করে তাদের বাতিল প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করতে কমিশনের ভিত্তিতে কাজ হয় এমন একটি দেশ খুজছে। আর এ কারণেই তারা বাংলাদেশকে বেছে নিয়েছে। তার মতে, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যে প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে সেই প্রযুক্তি সুন্দরবনকে বাঁচাতে পারবে না। তাই এটি বন্ধে দেশ বিদেশে জনমত গঠিত হচ্ছে। প্রয়োজনে প্রকল্পটি বন্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে যাওয়া হবে।

Screenshot_14সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের সমালোচনা করে তিনি বলেন, চীনের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে সাবমেরিন কেনা হচ্ছে। ভারতের কাজ থেকে ঋণ নিয়ে বিদ্যুৎ কেন্দ্র করা হচ্ছে। আর এই প্রকল্পের কাজ করবে ভারতই। প্রধানমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে তিনি বলেন, আপনি নির্ভয় দিলে আপনার দলের শতকরা ৯০ ভাগ মানুষ রামপাল প্রকল্পের বিপক্ষে কথা বলবে।

এর আগে নগরীর শিববাড়ি, ময়লাপোতা এবং পাওয়ার হাউজ এলাকা থেকে খন্ড খন্ড কয়েকটি মিছিল হাদিস পার্কে অনু‌ষ্ঠিত সমা‌বে‌শে এসে জ‌ড়ো হয়।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় কমিটির খুলনার সংগঠক ডা. মনোজ দাস। অন্যান্যের মধ্যে রুহিন হোসেন প্রিন্স, মনিরুল হক বাচ্ছু, এ্যাডভোকেট রুহুল আমীন, জনার্দন দত্ত নান্টু, মুনীর চৌধুরী সোহেল, কাজী দেলোয়ার হোসেন, এ্যাড. এস এম শাহ নেওয়াজ আলী, এ্যাড. মোঃ বাবুল হাওলাদার, এম এ কাশেম প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*