Wednesday , September 26 2018
Home / বাংলাদেশ / রংপুর বিভাগ / রোহিঙ্গা গণহত্যা ও সহিংসতার প্রতিবাদে রংপুরে মাপার মানববন্ধন

রোহিঙ্গা গণহত্যা ও সহিংসতার প্রতিবাদে রংপুরে মাপার মানববন্ধন

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা গণহত্যা ও সহিংসতার প্রতিবাদে গতকাল শনিবার রংপুরে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানবাধিকার ও পরিবেশ আন্দোলন মাপা’র উদ্যোগে সর্বস্তরের জনসাধারণের অংশগ্রহণে গতকাল দুপুরে রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।
পরে সেখানে মাপা’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মোশফেকা রাজ্জাকের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের প্রধান নির্বাহী অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, রংপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি সদরুল আলম দুলু, মাপা’র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট সাংবাদিক মাহবুবুল ইসলাম, রংপুর সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদের সভাপতি বিশিষ্ট সাংবাদিক আফতাব হোসেন, দৈনিক যুগের আলোর বার্তা সম্পাদক আবু তালেব, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রংপুর জেলা সভাপতি হাসনা চৌধুরী, সংস্কৃতি কর্মী মনোয়ার হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন চাঁদ, বাংলাদেশ বেতার রংপুরের সাবেক আঞ্চলিক পরিচালক মনোয়ারা বেগম, সুজনের রংপুর মহানগর সভাপতি ফকরুল আনাম বেঞ্জু, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বনমালী পাল, কমিউনিটি পুলিশিং ইউনিট রংপুর বিভাগীয় সদস্য সচিব সুশান্ত ভৌমিক, মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট ইলিয়াস আহমেদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক শাহ্ আলম, এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম সরকার, বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ দেলোয়ার হোসেন, ডাঃ সমর্পিতা ঘোষ তানিয়া, সীডস’র নির্বাহী পরিচালক সারথী রানী সাহা, মাহিগঞ্জ কলেজের শিক্ষক ড: নাসিমা আখতার, ব্যবসায়ী মুক্তার হোসেন, কারমাইকেল কলেজ ছাত্র সংগঠন ‘প্রত্যয় ৯১’ এর সাধারণ সম্পাদক আবেদ আলী, বেরোবি’র ছাত্র মিনহাজুল ইসলাম শাকিল, মাপা’র সদস্য ডাঃ নাঈমা নিমু, সিনিয়র সিটিজেন আমজাদ হোসেন, আলহাজ্ব নাফিসা সুলতানা, এ্যাডভোকেট রেজিনা ইয়াসমীন, এ্যাডভোকেট শাহীনা বেগম, এ্যাডভোকেট জেনিভা তাসমিম প্রমুখ।
বক্তারা রোহিঙ্গা জনগণকে নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ জাতিগত নিধনকর্মে মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর তীব্র নিন্দা করে জাতিসংঘসহ বিশ্ববাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, উখিয়া ও টেকনাফ সীমান্তে বাস্তচ্যুত ও প্রাণভয়ে পালিয়ে আসা লাখ লাখ রোহিঙ্গা শরনার্থী নারী, শিশু ও আহত মানুষদের খাদ্য সরবরাহ ও চিকিৎসার বন্দোবস্ত করার ক্ষেত্রে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহনের জন্য জাতীয় সরকারের যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ এবং শরনার্থীদের ত্রাণ সহায়তার জন্য বাংলাদেশ সরকারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য উন্নত বিশ্ব, সাহায্য সংস্থাসমূহ ও জাতিসংঘের প্রতি আবেদন জানান। বক্তারা মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গা শরনার্থী জনগোষ্ঠীকে রাখাইন রাজ্যে অবিলম্বে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারকে বাধ্য করতে রাজনৈতিক উদ্যোগ গ্রহণে কূটনৈতিক উদ্যোগ গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়া জাতিসংঘের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে রোহিঙ্গাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য যা কিছু করার আছে তার ব্যবস্থা করতে জোর দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*